কানাডা ভিসা ২০২৩।কানাডা ভিসা চেক এবং কানাডা ভিসার খরচ

 

কানাডা ভিসা ২০২২।কানাডা ভিসা চেক এবং কানাডা ভিসার খরচ

কানাডায় যেতে চান তাদের কানাডা ভিসার প্রয়োজন হয়ে থাকে। কানাডায় অনেকে পড়াশোনা এবং বিভিন্ন কাজের জন্য যেতে চান। তো যে কারণে তারা কানাডায় যেতে চান না কেন অবশ্যই ভিসা দরকার হবেই। 


কানাডা ভিসা কিভাবে করবেন এবং কানাডায় কয় ধরনের ভিসা পাওয়া যায় এই নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন। 


যারা কানাডা যেতে চান তারা চাইলে অনলাইনের মাধ্যমেই ভিসার আবেদন করতে পারবেন। তাছাড়া তাদের কানাডা ভিসা ফি কত হবে আরো অনেক বিষয় সম্পর্কে আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আলোচনা করা হবে। তাহলে চলুন দেরী না করে শুরু করা যাক এই বিষয় সর্ম্পকেঃ


কানাডা যাওয়ার উপায় 

আমেরিকান, মেক্সিকান এবং পৃথিবীতে আরো অনেক উন্নত দেশ রয়েছে যাদের দেশের নাগরিকদের কানাডায় যাওয়ার জন্য কোন ধরনের ভিসার প্রয়োজন হয় না।তারা ইলেকট্রনিক ট্রাভেল অথোরাইজেশন এর মাধ্যমে খুব সহজেই কানাডায় যেতে পারেন। 


বেশিরভাগ বিদেশি যারা কানাডায় পড়াশোনা করতে চান বা কাজ করতে চান তাদেরকে প্রথমে স্টাডি ভিসার জন্য আবেদন করতে হয়। তারা অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজেই চাইলে কানাডা এই স্টাডি ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন। 


অনলাইনে কানাডা ভিসার জন্য আবেদন করতে হলে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে আঙুলের ছাপ দিতে হবে।যারা কানাডায় যেতে চান তারা কানাডায় চাকরি না করে প্রথম পর্যায়ে কাজের ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।


অবশ্যই পড়ুন 

ইতালি ভিসা পাওয়ার নিয়ম এবং ভিসা প্রসেসিং খরচ

কুয়েত ভিসা চেক করার নিয়ম এবং ভিসা প্রসেসিং খরচ


কানাডার যাওয়ার জন্য যে ধরনের ভিসা লাগবে 

আমেরিকার থেকে যদি কেউ কানাডা যেতে চান তাহলে ছয় মাসের জন্য তার কোন ভিসা লাগবে না শুধুমাত্র পাসপোর্টের মাধ্যমেই যেতে পারবেন। 


মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে কানাডা যাওয়ার জন্য ভিসার প্রয়োজন না থাকলেও বিমান যোগে যদি কানাডা যাতে চান তাহলে আপনার ইলেকট্রনিক ট্রাভেল অথরিজেশন এর প্রয়োজন হবে। 


ইউরোপীয় ইউনিয়নের যেকোন দেশ থেকে খুব সহজেই বিনা ভিসাতে তারা চাইলে কানাডা ভ্রমণ করতে পারেন। যারা ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে কানাডা ভ্রমণ করতে চান তাদের শুধু ইলেকট্রনিক ভ্রমণ অনুমোদন বা ইটিএ দরকার পড়ে থাকে যা সহজেই অনলাইনের মাধ্যমে সংগ্রহ করা যায়। 


বাংলাদেশ থেকে কানাডা ভিসা

অন্যান্য দেশ থেকে কানাডার যাওয়া অনেকটা সহজ হলেও বাংলাদেশ থেকে কানাডা যাওয়া অতটা সহজ নয়। তবে যারা বাংলাদেশ থেকে কানাডা যেতে চান তাদের জন্য আমাদের দেশে মাঝেমধ্যে কিছু ভিসা দেওয়া হয়ে থাকে। নিচে সেই ভিসা গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলোঃ-


১.কানাডা লেবার ভিসা 

২.কানাডা কৃষি ভিসা 

৩.কানাডা টুরিস্ট ভিসা

৪.কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা

 

কানাডা লেবার ভিসা /কানাডা জব ভিসা

কানাডা সরকার কিছু সবাই বাংলাদেশ থেকে কানাডা লেবার ভিসা নিয়ে থাকে। অর্থাৎ নির্দিষ্ট কিছু সময়ের জন্য এই লেবাররা কানাডায় গিয়ে কাজ করতে পারেন। কিন্তু কানাডা লেবার ভিসা সকল সময় পাওয়া যায় না।


কানাডা কৃষি ভিসা 

কানাডা কৃষিকাজের জন্য যখন কানাডা সরকারের লোক নিয়ে থাকে তখন কানাডা কৃষি ভিসা দেওয়া হয়ে থাকে বিভিন্ন দেশে। বিভিন্ন দেশ থেকে কানাডা কৃষি ভিসার জন্য তখন লোক নেওয়া হয়ে থাকে।


যারা কানাডাতে কৃষি কাজের জন্য যেতে চান তারা চাইলে কানাডা কৃষি ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন। তবে কানাডা কৃষি অফিসার মাধ্যমে আপনারা সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে পারবেন না। এটাকে অনেকটা সিজনাল ভিসার সাথে তুলনা করা হয়ে থাকে।


কানাডা টুরিস্ট ভিসা /কানাডা ভ্রমণ ভিসা 

যারা শুধুমাত্র ভ্রমণের জন্য কানাডা যেতে চান তাদের জন্য কানাডা টুরিস্ট ভিসা দেওয়া হয়ে থাকে।কানাডা টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে নির্দিষ্ট কিছুদিন কানাডাতে গ্রহণ করা যাবে। এই ভিসাটি প্রায় সকল সময়ই পাওয়া যায় এবং কানাডা সরকার শুধুমাত্র ভ্রমণকারীদের জন্য এই ভিসাটা দিয়ে থাকে।


কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা /স্টুডেন্ট ভিসার দাম 

যারা শুধুমাত্র কানাডায় পড়াশোনার জন্য যেয়ে থাকেন তারা চাইলে কানাডা স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন। কানাডা স্টুডেন্ট ভিসার মাধ্যমে সেখানে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত শুধু পড়াশোনা করা যাবে। কানাডাতে প্রায় সময়ই স্টুডেন্ট ভিসা চালু করা হয় এবং এর মাধ্যমে সেই দেশে লোক নেওয়া হয়। 


কানাডা ভিসার জন্য আবেদন যেভাবে করবেন 

কানাডা ভিসার জন্য বাংলাদেশ থেকে আবেদন করার তেমন কোনো সুযোগ নাই। অর্থাৎ আপনি বাংলাদেশি একজন নাগরিক হয়ে কানাডা ভিসার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন না। তবে আপনারা চাইলে নির্দিষ্ট কিছু পদ্ধতি অনুসরন করে বাংলাদেশ থেকে কানাডা ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন এই লিংকের মাধ্যমে https://visa.vfsglobal.com/bgd/bn/can/।


কানাডা ভিসা আবেদন ফরম 

যারা কানাডা ভিসার জন্য আবেদন ফরম ডাউনলোড করতে চান তারা চাইলে এই লিংকের মাধ্যমে সরাসরি কানাডা ভিসার জন্য আবেদন ফরম টি ডাউনলোড করতে পারবেন।নিচে আপনাদের সুবিধার্থে জন্য লিঙ্কটি দেওয়া হল https://visa.vfsglobal.com/bgd/bn/can/।



কানাডা ভিসা খরচ কত 

কানাডা ভিসা খরচ বা কানাডা জব ভিসা খরচ কত হতে পারে এই সম্পর্কে অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন। কানাডা যাওয়ার খরচ এবং কানাডার ইমিগ্রেশন খরচ এগুলো অনেক বিষয়ের উপর নির্ভর করে থাকে।

আপনারা ইতিমধ্যে জেনে গিয়েছেন যে কানাডা যাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের ভিসা দেওয়া হয়ে থাকে। যেমন:-


★কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা 

★কানাডা জব ভিসা 

★কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা 

★কানাডা টুরিস্ট ভিসা 


তাছাড়া আরও অনেক ধরনের ভিসার ক্যাটাগরী রয়েছে যেগুলো দেওয়া হয়ে থাকে। তাহলে অবশ্যই বুঝতে পারছেন যে ভিসার ক্যাটাগরী ভেদে খরচের পরিমাণ ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে।


তবে কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য ৫ লক্ষ টাকা, কানাডা কাজের ভিসা জন্য সাত লক্ষ টাকা,এবং কানাডা কৃষি ভিসা করার জন্য ৫ লক্ষ টাকার মতো খরচ হয়ে থাকে।


কানাডা ভিসা চেক /কানাডা ভিসা পাওয়ার উপায় 

কানাডা ভিসা আপনি যদি করেন তাহলে ভিসাটি পরবর্তীতে কিভাবে চেক করবেন এই নিয়ে অনেক ধরনের বিপত্তি দেখা যায়।যারা কানাডা ভিসা চেক করতে চান তারা চাইলে খুব সহজেই https://www.canada.ca/en/immigration-refugees-citizenship/services/application/check-status.html এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কানাডার ভিসা চেক করতে পারবেন।

1 মন্তব্যসমূহ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন
নবীনতর পূর্বতন

Musik

Bisnis